দেশের সেরা ১২ মেধাবী শিক্ষার্থীর তুরস্কে সফর

জাতীয় সৃজনশীল মেধা অন্বেষন প্রতিযোগিতায় পাঁচ দিনের শিক্ষা সফরে তুরস্ক যাচ্ছেন কিশোরগঞ্জের কৃতী বিতার্কিক সাফওয়াত সায়মা অর্পি। কিশোরগঞ্জ শহরের এসভি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে সমকাল বিজ্ঞান বিতর্কে দুই বারের (২০১৪ ও ২০১৫) জাতীয় চ্যাম্পিয়ন হয় ওই শিক্ষার্থী অর্পি।

জানা গেছে, অর্পি সহ জাতীয় পর্যায়ের সেরা ১২ মেধাবী শিক্ষার্থী তুরস্ক যাচ্ছেন। গত সোমবার ভোর সোয়া ৬টায় একটি ফ্লাইটে তারা তুরস্কের উদ্দেশ্যে রওনা হন।

জাতীয় পর্যায়ের সেরা ১২ মেধাবীর হলেন, এসভি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাফওয়াত সায়মা অর্পি, কুমিল্লা জেলা স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ফাইজুল কবির রাব্বি, নেত্রকোনা গভ. গার্লস হাইস্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী জান্নাতুল বুশরা, রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী সিরাতুল মুস্তাকিম শ্রাবনী, কুড়িগ্রাম গভর্নমেন্ট হাইস্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী জাহান মুস্তারী।

এছাড়া আরো রয়েছেন, মতিঝিল গেভর্নমেন্ট বয়েজ হাইস্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র সানজাদ হোসাইন, নটরডেম কলেজের মুহাম্মদ রাকিব মুয়িব, রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ইশিতা জাহান, বরিশাল জেলা স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র ইমতিয়াজ তানভীর রহিম, চট্টগ্রামের গভর্নমেন্ট হাজি মোহাম্মদ মহসীন কলেজের একাদশ শ্রেণির মেহরাজুল ইসলাম এবং পটুয়াখালীর আব্দুর রশীদ সরদার সেকেন্ডারি স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র অনির্বাণ মিত্র আবির।

সাফওয়াত সায়মা অর্পির বাবা কামরুল ইসলাম আকন্দ ও মা কাজল রেখা। করিমগঞ্জ উপজেলা পল্লী দারিদ্র বিমোচন ফাউন্ডেশনে কর্মরত কামরুল ইসলাম আকন্দের দুই কন্যা সন্তান সাফওয়াত সায়মা অর্পি ও রাফা এর মধ্যে সাফওয়াত সায়মা অর্পি। সাফওয়াত সায়মা অর্পির হাতেখড়ি করিমগঞ্জের চাইল্ড কেয়ার কিন্ডারগার্টেনে।

প্রাথমিকের পাঠ চুকিয়ে সাফওয়াত সায়মা অর্পি কিশোরগঞ্জ এসভি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হন। সেখান থেকে কৃতিত্বের সাথে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর এখন হলিক্রস কলেজে উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থী হিসেবে অধ্যয়ন করছেন। স্কুল জীবনেই একজন তুখোড় বিতার্কিক হিসেবে সাফওয়াত সায়মা অর্পি নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যান।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, সারা দেশ থেকে মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতায় সেরা হওয়া ১২ জন শিক্ষার্থী শিক্ষা সফরের জন্য তুরস্কে যাচ্ছে। সেখানে ঐতিহাসিক নিদর্শনসহ শিক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন স্থাপনা পরিদর্শন করবে এই শিক্ষার্থীরা। তুরস্কযাত্রার আগের দিন রোববার (৮ জুলাই) এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই মেধাবীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *