বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি (বুয়েট) পরিচিতি

বুয়েট হচ্ছে  প্রকৌশল এবং স্থাপত্যে পড়াশোনার ক্ষেত্রে সবচেয়ে পুরাতন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ১৮৭৬ সালে পুরাতন ঢাকার নালগোলায় সার্ভে স্কুল হিসেবে প্রথমে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে এ স্কুল আহসানুল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুলে রূপান্তরিত হয় এবং তখন এখানে তিন বছরের ডিপ্লোমা কোর্স চালু ছিল। এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছিলেন ঢাকার নওয়াব। তাই পরবর্তীতে ঢাকার নওয়াবের পিতার নামানুসারে এর নাম রাখা হয় খাজা আহসানুল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুলে । ১ঌ১২ সালে এ প্রতিষ্ঠান বর্তমান স্থানে প্রতিষ্ঠিত হয়। এরপর ১ঌ৪৮ সালে আহসানুল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে উন্নীত হয়। সে সময় এ প্রতিষ্ঠানে ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের অধীনে সিভিল, ইলেকট্রিক্যাল, মেকানিক্যাল, কেমিক্যাল এবং মেটালারজিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এর উপর চার বছরের ব্যাচেলর কোর্স চালু হয় । এটি  তখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ছিল। পোস্ট-গ্রাজুয়েট ডিগ্রী এবং গবেষণা সুবিধার উন্নতি সাধনের লক্ষ্যে আহসানুল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ১ঌ৬২ সালে পূর্ব পাকিস্তান ইউনিভার্সিটি  অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি নামে পরিচিতি লাভ করে। পরবর্তীতে ১ঌ৭১ সালে স্বাধীনতার পর পুনরায় এর নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি৷

যোগাযোগের ঠিকানা

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি
পলাশী, ঢাকা -১০০০
ফোন নম্বরঃ
পিএবিএক্সঃ (৮৮০-২) ৫৫১৬৭১০০, ৫৫১৬৭২২৮-৫৭
ফ্যাক্সঃ ৮৮০-২-৮৬১৩০৪৬
ওয়েবসাইটঃ http://www.buet.ac.bd

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *